চট্রগ্রাম মেডিকেলে বালিশের কভারের দাম ২৮ হাজার টাকা!                 জাকারবার্গের পোস্টে বাংলাদেশের বিজ্ঞানীদের সাফল্যের খবর                 বশেমুরবিপ্রবি’র ভিসিকে প্রত্যাহারের সুপারিশ                 খালেদার মুক্তি হবে না আদায় করতে হবে                 নিউইয়র্ক থেকে দেশের পথে প্রধানমন্ত্রী                 খালেদার সঙ্গে বিসিবি পরিচালক লোকমানের যে ছবি ভাইরাল                 স্টুডেন্ট ফোরাম অব চাতলের কৃতী শিক্ষার্থী সংবর্ধনা ও ম্যাগাজিন প্রকাশনা অনুষ্ঠান                

আপনারা সাড়ে ১০ বছর ক্ষমতায়, এখনো ছাত্রদল বালিশ কিনতে পারছে?

: সোনার সিলেট
Published: 19 06 2019     Wednesday   ||   Updated: 19 06 2019     Wednesday
আপনারা সাড়ে ১০ বছর ক্ষমতায়, এখনো ছাত্রদল বালিশ কিনতে পারছে?

সোনার সিলেট ডেস্ক ।।  মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনি বলেছেন, বালিশ কেনার দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তা ছাত্রদল করতেন। আমাদের প্রশ্ন, আপনি কি এই তথ্য বালিশকাহিনির পরে জানলেন? নাকি আগে থেকেই আপনার কাছে তথ্য ছিল? একজন অভিযুক্ত আগে কোন দল বা সংগঠন করতো, কোন রাজনীতিতে বিশ্বাসী ছিল– এটা বলে আপনি কী প্রমাণ করতে চাইলেন?

সাড়ে দশ বছর ধরে আপনি ও আপনার দল ক্ষমতায়। এখনো ছাত্রদলের লোকেরা বালিশ কিনতে পারছে, আর কী কী কিনছে তা তো এখনো আমরা জানি না। ধরা না খেলে তো আমাদের পক্ষে জানা সম্ভব না যে, প্রশাসনে বা সরকারের উচ্চপদে ছাত্রদল বা বিএনপির আর কে কে আছে? স্বাভাবিক অবস্থায় আমরা তো জানি যে, সরকারের উচ্চপদের বা গুরুত্বপূর্ণরা সবাই আওয়ামী লীগের আদর্শে বিশ্বাসী বা অন্তত চরমভাবে আস্থাশীল।

অবশ্য সরকারে, দলে বা ছাত্রলীগে অনুপ্রবেশের অভিযোগ নতুন নয়। বিভিন্ন ঘটনায় বা অন্যায়ের প্রেক্ষাপটে হাইব্রিড, ‘কাউয়া’ এসব মনোহর শব্দ বা শব্দবন্ধ আমরা উপহার পেয়েছি। দেখে শুনে মনে হয় কেউ কোনো অপরাধ করতে পারে কিনা তার কষ্টিপাথর হলো সে এখন কোন দল করে বা একসময় বিএনপি বা ছাত্রদল করেছে কিনা।

প্রিয় প্রধানমন্ত্রী, আপনাকে স্মরণ করিয়ে দিতে চাই, আপনি এখনও সংবিধানের ৭০ অনুচ্ছেদের সমর্থক। কারণ, আপনি জানেন, আপনার দলের সদস্যরাও দল বদলে ফেলতে পারে সদস্যপদ হারানোর হুমকি না থাকলে। একাধিকবার আপনি বলেছেনও আপনার দলের লোকদেরও কেনা যায়! সংসদে দাঁড়িয়ে ব্যাখ্যা দিতে হয়েছে পরিবার বলতে আপনি বোঝেন– আপনি ও আপনার ছোট বোনের ছেলে-মেয়েদের পরিবার,ব্যাস।

আপনি যে বারবার বলেন, যে সন্ত্রাসী বা দুর্নীতিবাজ তা সে যে দলেরই হোক না কেন শাস্তি তাকে পেতে হবে। এটা দিয়ে আপনি আসলে কী বোঝাতে চান? অবস্থা দেখে তো মনে হয় আপনি বিশ্বাসই করেন না যে, আপনার দলে এরকম কেউ থাকেত পারেন। দেখুন বালিশ প্রকৌশলীর কথা বলতে গিয়ে আপনি বলছেন, ‘‘..এমন এমন লোক রয়ে গেছেন, জন্ম থেকেই তাদের চরিত্র দুর্নীতির।” হতে পারে মাননীয় প্র্রধানমন্ত্রী। কিন্তু আপনি বিশ্বাস করেন আপনার দলে, সরকারে, এমনকি খুব কাছেও খারাপ লোক আছে বা থাকতে পারে। তারা ধরাও কিন্তু পড়বে। তাদের সবাইকে আপনি বিএনপি বা ছাত্রদলের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়তো বলতে পারবেন না। তাই তাদের সাবধান করুন। নিজেও সতর্ক হন।

এসএসডিসি/আরডিআর




Share Button

আর্কাইভ

October 2019
M T W T F S S
« Sep    
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031  

Prayer Time Table

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ভোর ৪:৩৮
  • দুপুর ১১:৪২
  • বিকাল ৩:৪৯
  • সন্ধ্যা ৫:৩০
  • রাত ৬:৪৪
  • ভোর ৫:৫০


Developed By Mediait