নতুন ও হারানো সিমকার্ডে ট্যাক্স ২০০ টাকা                 তিন সুন্দরীর হলো মেলা বিশ্বকাপে                 মিস ইন্ডিয়াকে যৌন হেনস্তা করায় ৭ জন গ্রেফতার                 বাংলায় এসএমএস পাঠালে খরচ অর্ধেক!                 আপনারা সাড়ে ১০ বছর ক্ষমতায়, এখনো ছাত্রদল বালিশ কিনতে পারছে?                 সিলেট-জগন্নাথপুর সড়কে বন্ধ হয়ে যেতে পারে গাড়ি চলাচল                 সিলেটে সড়ক যাত্রায় নারীদের জন্য আলাদা বাস, ড্রাইভার-হেলপারও নারী                

সফলতার জন্য যাদের সঙ্গ ত্যাগ করা উচিত

: সোনার সিলেট
Published: 06 06 2019     Thursday   ||   Updated: 06 06 2019     Thursday
সফলতার জন্য যাদের সঙ্গ ত্যাগ করা উচিত

 মো. শাহ্ নেওয়াজ।। সফতা এমন এক সোনার হরিণ, যেটিকে জগতের সবাই ছুঁয়ে দেখতে চায়, তাকে অর্জন করতে চায়। ছুঁয়ে দেখতে চাওয়া এই সফলতার হাতছানির জন্য কেউ কেউ চিন্তা করে কাটিয়ে দেন সারা রাত, আবার কেউ কেউ ঠিকঠাক ঘুমিয়েও জীবনের একটা সময় সফলতার দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে যান। সফলতা আসলে ঘুমানো বা না ঘুমানোর ওপর নির্ভর করেনা।

বেশিরভাগ মানুষ সফল হওয়ার জন্য প্রথমেই যে পরামর্শটি দেন, তাহলো আপনাকে অনেক বেশি পরিশ্রমী হতে হবে। শুধু তা-ই নয়, আপনার একটি নির্দিষ্ট লক্ষ্য বা স্বপ্ন থাকতে হবে। রুটিন করে নিয়মিত কাজ করতে হবে, সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠেই কাজে লেগে যেতে হবে, প্রচুর বই পড়তে হবে, ইতিবাচক চিন্তাভাবনার অধিকারী হতে হবে এবং যে কাজের মাধ্যমে আপনি সফল হতে চান অবশ্যই সেটির পিছনে দিনরাত লেগে থাকতে হবে। এছাড়াও আরও অনেক বিষয় আছে।

তবে মজার বিষয় হলো, এতসব পরামর্শ মেনে চলার পরও দেখবেন কিছু বিষয় আছে যা সব সময়ই আপনাকে পিছন থেকে টেনে ধরে, সামনে এগুতে দেয়না। আমাদের অনেকের জীবনেই এই ছোট ছোট বিষয়গুলো আমাদের সফলতার পথে বড় ধরনের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে থাকে। সব পরামর্শ মেনে চলার পরও যে সকল ছোট ছোট বিষয়গুলো আপনার জীবনে সফলতার ক্ষেত্রে বড় ধরনের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে তার মধ্যে অন্যতম হলো আপনার পর আপনার আশেপাশের কিছু নেতিবাচক মানুষের প্রভাব। যাদের কারণে আপনি যতটা না সামনে আগান, তার থেকে অনেক বেশি আপনার পিছিয়ে পড়তে হয়।

হতে পারে তারা আপনার সহকর্মী, কাছের বন্ধুবান্ধব, পরিবারের সদস্য বা আপনার সহপাঠী। জীবনে সফল হতে চাইলে অবশ্যই তাদের সঙ্গে খুব গভীর সম্পর্কে জড়ানো যাবেনা, কিংবা তাদেরকে পুরোপুরি ত্যাগ করতে হবে আপনার। যদিও এটা আপনার কাছে প্রথমে অসম্ভব মনে হতে পারে, কিন্তু সফলতা অর্জন করতে গেলে এটা আপনাকে করতেই হবে। এবার আসুন জেনে নেওয়া যাক আমাদের আশেপাশের এমন কিছু নেতিবাচক মানুষের সম্পর্কে।

১. যারা সর্বদাই আপনার দোষ খুঁজতে ব্যস্ত থাকে : খেয়াল করে দেখবেন আপনার আশেপাশে এমন কিছু মানুষ আছে যারা সব সময়ই আপনার দোষ খুঁজে বের করার কাজেই ব্যস্ত থাকে। আপনি যদি ভুল করে সামান্য পরিমাণ দোষও করেন, তারা সেটাকে এমনভাবে উপস্থাপন করবে যেনো আপনি মহাভারত অশুদ্ধ করে ফেলেছেন। এবং এভাবেই তারা মানুষের কাছে আপনাকে ছোট করে, আপনার প্রতি মানুষের মনে নেতিবাচক ধারণা তৈরি করে!

২. যারা আপনাকে শুধু তাদের স্বার্থে ব্যবহার করে : মানুষ তার নিজের স্বার্থের ব্যাপারে সচেতন হবে এটা স্বাভাবিক। কিন্তু কিছু কিছু মানুষ আছে যারা দেখবেন সব সময়ই আপনাকে তাদের স্বার্থে ব্যবহার করে, আপনার মাথায় কাঁঠাল ভেঙে খায়। পক্ষান্তরে, তারা আপনাকে শুধু মিষ্টি মিষ্টি কথা শোনায়, লোক দেখানো ভালোবাসার কথা বলেই সন্তুষ্ট রাখে। তাদের কাছে কখনোই আপনার স্বার্থ বা প্রয়োজন প্রাধান্য পায়না। তারা নেওয়ার বেলায় আছে, কিন্তু দেওয়ার বেলায় নাই!

৩. যারা কথায় কথায় মিথ্যা আশ্বাস দেয় : সহকর্মী বা বন্ধুবান্ধবদের মাঝে এমন কিছু মানুষ আছে যাদের যখনি আপনি জিজ্ঞেস করেন, তারা বলে সব সময়ই তারা আপনার পাশে আছে, আপনাকে কখনোই ছেড়ে যাবেনা। কিন্তু খেয়াল করে দেখবেন একসময় তাদের আশ্বাস ঠিকই থাকে, কিন্তু তাদের হদিস পাওয়া যায়না। তারা সাধারণত ঝোঁকের বশে, আপনার চাকচিক্য দেখে, আপনার অর্জন দেখে বা নিজেদের স্বার্থের কথা বিবেচনা করেই আপনার কাছে আসে। আবার হুট করে চলেও যায়। মাঝখানে মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে তাদের ওপর আপনার অনাকাঙ্ক্ষিত নির্ভরশীলতা বাড়ায় মাত্র!

৪. যাদের চিন্তাভাবনা মানেই নেতিবাচক : আপনি যত ভালো কাজই করেন না কেন, এক শ্রেণির মানুষ আছে যাদের কাজই সেটাকে নিয়ে নেতিবাচক মন্তব্য করা, মিথ্যা গুজব ছড়ানো। তারা নিজেরাও কোন ভালো কাজ করতে পারেনা, মানুষের ভালো কাজগুলোকেও সহ্য করতে পারেনা। তারা সাধারণত ভালো কাজের জন্য আপনাকে কেউ সম্মান করলে, ভালোবাসলেও হিংসে করে। কোনো প্রমাণ ছাড়াই খেয়ালখুশি মতো আপনার নামে মানুষের কাছে মিথ্যা অপবাদ দেয়, বদনাম ছড়ায়!

৫. যাদের সঙ্গ উপকারের বদলে আপনার ক্ষতিই বেশি করে : কিছু মানুষের সঙ্গে চলাফেরা করলে দেখবেন অযথাই আপনাকে বিপদের সম্মুখীন হতে হয়। মাঝে মাঝে শুধু বিপদের সম্মুখীনই নয়, আপনাকে অপমান অপদস্থও হতে হয়। এবং যাদের সঙ্গে চলাফেরা করলে আপনার অর্জনগুলোও ধীরে ধীরে নষ্ট হয়ে যায়!

সফলতার জন্য নানান ধরনের পরামর্শ মেনে চলার পাশাপাশি এ সকল শ্রেণির মানুষদের যদি আপনি ত্যাগ করতে পারেন, নিশ্চয়ই সেটা আপনার সফলতার পথকে আরও সহজ করবে, মসৃণ করবে।

সর্বোপরি আরেকটা কথা- কখনোই অন্যের ওপর নির্ভরশীল হবেন না। আপনার কাজগুলো আপনার মতই কেউ করে দিবে এটা ভেবে বসে থাকবেন না। মনে রাখবেন, আপনার কাজগুলোকে আপনি যতটা ভালোবাসতে পারবেন, অন্য কেউ ততটা পারবেনা। আর এ সবকিছুই আপনি যত তাড়াতাড়ি মেনে নিতে পারবেন, সফল হওয়ার পথটা আপনার জন্য তত তাড়াতাড়িই সহজ হবে।

এসএসডিসি/ কেএ




Share Button

আর্কাইভ

June 2019
M T W T F S S
« May    
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930

Prayer Time Table

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ভোর ৩:৪০
  • দুপুর ১১:৫৬
  • বিকাল ৪:৩২
  • সন্ধ্যা ৬:৪৫
  • রাত ৮:১১
  • ভোর ৫:০৪


Developed By Mediait