নতুন ও হারানো সিমকার্ডে ট্যাক্স ২০০ টাকা                 তিন সুন্দরীর হলো মেলা বিশ্বকাপে                 মিস ইন্ডিয়াকে যৌন হেনস্তা করায় ৭ জন গ্রেফতার                 বাংলায় এসএমএস পাঠালে খরচ অর্ধেক!                 আপনারা সাড়ে ১০ বছর ক্ষমতায়, এখনো ছাত্রদল বালিশ কিনতে পারছে?                 সিলেট-জগন্নাথপুর সড়কে বন্ধ হয়ে যেতে পারে গাড়ি চলাচল                 সিলেটে সড়ক যাত্রায় নারীদের জন্য আলাদা বাস, ড্রাইভার-হেলপারও নারী                

হবিগঞ্জ সদর হাসপাতাল: বিশ্রামে চিকিৎসক, রোগী দেখছেন ইন্টার্নরা!

: সোনার সিলেট
Published: 26 05 2019     Sunday   ||   Updated: 26 05 2019     Sunday
হবিগঞ্জ সদর হাসপাতাল: বিশ্রামে চিকিৎসক, রোগী দেখছেন ইন্টার্নরা!

সোনার সিলেট ডেস্ক ।।  হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে অভিযান পরিচালনা করেছেন বাংলাদেশ দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এ সময় হাসপাতালের বিভিন্ন অব্যবস্থাপনা দেখে ক্ষোভ প্রকাশ করেন দুদক কর্মকর্তারা। একই সাথে ৭ দিনের মধ্যে সকল সমস্যা সমাধান করার নির্দেশ প্রদান করেন তারা।

রোববার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত এ অভিযান পরিচালনা করেন বাংলাদেশ দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) হবিগঞ্জের সহকারি পরিচালক মোহাম্মদ এরশাদ। এ সময় তার সাথে দুদকের আরো দুইজন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

জানা যায়, রোববার সকালে সিভিল পোষাকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে অবস্থান নেন বাংলাদেশ দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) হবিগঞ্জ কার্যালয়ের তিনজনের একটি দল। এ সময় দুদক কর্মকর্তারা হাসপাতালে কোন ডাক্তার পাননি।

তারা দেখেন, সেখানে রোগীদের চিকিৎসা দিচ্ছেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা। সেখানে ঘন্টাখানেক অবস্থান করার পর কোন ডাক্তারের দেখা না পেয়ে ফিরে যান দুদক কর্মকর্তারা। কিছুক্ষণ পর নিজেদের পোষাক পরে আবারো তারা (দুদক কর্মকর্তা) সদর হাসপাতালে অভিযান চালান।

এ সময়ও ইমার্জেন্সি বিভাগে কোন ডাক্তার ছিলেন না। দায়িত্বপ্রাপ্তরা জানান, ইমার্জেন্সি বিভাগে ডাক্তার তার নিজ রুমে বিশ্রাম করছেন। পরে সেখানে গিয়ে ডাক্তার মিঠুর রায়কে পান দুদক কর্মকর্তারা।

এ ব্যাপারে ডাক্তার মিঠুন রায় দুদক কর্মকর্তাদের জানান, তিনি সেখানে কয়েকজন রোগীর ছাড়পত্র লিখছিলেন। পরে দুদক টিম সদর হাসপাতালের বিভিন্ন ওয়ার্ড ঘুরে বিভিন্ন অব্যবস্থাপনা দেখতে পান। এছাড়া সরকারি ঔষধ বিতরণে বিভিন্ন অনিয়ম পান তারা। একই সাথে হাসপাতালের বিভিন্ন সংকটও দুদক কর্মকর্তাদের নজরে আসে। এ ব্যাপারে সকল সমস্যা সমাধান করতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে ৭ দিনের সময় দিয়ে যান দুদক।

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ দুর্নীতি দমন কমিশন হবিগঞ্জ কার্যালয়ের সহকারি পরিচালক মোহাম্মদ এরশাদ বলেন, সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত আমরা হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ছিলাম। সেখানে বিভিন্ন অনিময় পাওয়া গেছে। দ্রুত সকল সমস্যা সমাধানের জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এসএসডিসি/আরডিআর




Share Button

আর্কাইভ

June 2019
M T W T F S S
« May    
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930

Prayer Time Table

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ভোর ৩:৪০
  • দুপুর ১১:৫৬
  • বিকাল ৪:৩২
  • সন্ধ্যা ৬:৪৫
  • রাত ৮:১১
  • ভোর ৫:০৪


Developed By Mediait