সোনার সিলেট

যে কারণে নতুন চলচ্চিত্রে দেখা যাচ্ছে না পূর্ণিমাকে

Published: 28 07 2017   7:15:36 PM   Friday   ||   Updated: 28 07 2017   7:15:36 PM   Friday
যে কারণে নতুন চলচ্চিত্রে দেখা যাচ্ছে না পূর্ণিমাকে

বিনোদন ডেস্ক।। গত ঈদেই পূর্ণিমাকে বেশ কিছু নাটক-টেলিফিল্মে অভিনয় করার কথা ছিল। কিন্তু ঈদের আগেই তিনি আমেরিকা চলে যান। যে কারণে প্রযোজক পরিচালকদের তাকে নিয়ে কাজ করার আগ্রহ থাকলেও পূর্ণিমা সময় দিতে পারেননি। দেশে ফিরেই পূর্ণিমা তার ব্যক্তিগত নানা কাজ নিয়ে ছিলেন দারুণ ব্যস্ত। এর মধ্যে গেল ২৪ জুলাই তিনি ২০১৫ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে উপস্থাপনাও করেছেন।

 

কাজে বিরতি শেষে পূর্ণিমা নাটকের কাজ শুরু করেছেন। ঈদের আগ পর্যন্ত বলা যায় শুটিং নিয়েই ব্যস্ত থাকবেন তিনি। এবারের ঈদে যেসব নির্মাতাদের নির্দেশনায় কাজ করবেন তিনি তারা হচ্ছেন মুশফিকুর রহমান গুলজার, এস এ হক অলিক, তানিয়া আহমেদ, ইমরাউল রাফাত, মানিক ও রোমান। এরই মধ্যে তিনি রোমানের নির্দেশনায় একটি নাটকের কাজ শুরু করেছেন।

 

কাজ শুরু প্রসঙ্গে পূর্ণিমা বলেন,‘ এবারের ঈদ উপলক্ষে মনে হচ্ছে কাজের অনেক চাপ থাকবে। অনেকেই চাইছেন তাদের নাটকে কাজ করি। কারণ গেল ঈদে অনেকের ইচ্ছে পূরণ করা সম্ভব হয়নি। যে কারণে এবারের ঈদে তাদের সিডিউল দিতে হচ্ছে। তবে এটা সত্য যে স্ক্রিপ্ট আমার ভালোলাগাটাও ভীষণ জরুরি। স্ক্রিপ্ট এবং সর্বোপরি আমার চরিত্র পছন্দ না হলে আমি কাজ করি না।’

 

এ দিকে জুলাইর প্রথম সপ্তাহে রায়হান খান পরিচালিত ‘যখন সময় থমকে দাঁড়ায়’ নাটকের শুটিং হওয়ার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত শুটিং হয়নি। এতে তার বিপরীতে অভিনয় করছেন নোবেল ও মোশাররফ করিম। ছোটপর্দায় কাজ করলেও নতুন কোন চলচ্চিত্রে পূর্ণিমাকে আপাতত দেখা যাচ্ছে না। পূর্ণিমা বলেন, ‘প্রায় সময়ই চলচ্চিত্রে কাজ করার জন্য প্রস্তাব আসে। কিন্তু গল্প চরিত্র মনের মতো না হওয়ায় শেষ পর্যন্ত আর কাজ করা হয়ে ওঠে না। যে কারণে নতুন কোনো চলচ্চিত্রে দেখা যাচ্ছে না। যেহেতু মনেপ্রাণে আমি চলচ্চিত্রেরই একজন মানুষ। তাই চলচ্চিত্রেই কাজ করতে চাই। কিন্তু সবকিছু ব্যাটে বলে না হলে তো আর কাজ করা যায় না।’

 

বরেণ্য পরিচালক কাজী হায়াতের ‘ওরা আমাকে ভালো হতে দিলো না’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য পূর্ণিমা প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে ভূষিত হন। ১৯৯৮ সালের ১৫ মে জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত চিত্রনায়ক রিয়াজের বিপরীতে ‘এ জীবন তোমার আমার’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় পূর্ণিমার। গত ১৫ মে চলচ্চিত্র জীবনের ২০ বছরে পা রাখলেন তিনি।

 

পূর্ণিমা অভিনীত উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রগুলো হচ্ছে- ‘মনের মাঝে তুমি’, ‘হৃদয়ের কথা’, ‘আকাশ ছোঁয়া ভালোবাসা’, ‘শোভা’, ‘শাস্তি’ ইত্যাদি। জাহিদ হাসান নির্দেশিত ‘লাল নীল বেগুনী’ ধারাবাহিক নাটকটি তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য নাটক। ২০১২ সালে পূর্ণিমা চ্যানেল আইয়ে প্রচারিত ‘সেরা নাচিয়ে’র বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। সর্বশেষ তিনি মিজানুর রহমান আরিয়ানের নির্দেশনায় একটি মেহেদীর বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করেন।

printars line
সর্বস্বত্ব www.begum24.com কর্তৃক সংরক্ষিত
সোনার সিলেট