১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ সন্ধ্যা ৭:০২

সিলেটে চোরাচালান প্রতিরোধ সংক্রান্ত আঞ্চলিক টাস্কফোর্সের সভা অনুষ্ঠিত

সোনার সিলেট ডেস্ক
  • আপডেট সোমবার, নভেম্বর ২০, ২০২৩,
বিভাগীয় কমিশনার আবু আহমদ ছিদ্দীকী, এনডিসি সিলেটে বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে চোরাচালান প্রতিরোধ সংক্রান্ত সিলেট বিভাগীয় আঞ্চলিক টাস্কফোর্স কমিটির সভায় সভাপতিত্ব করেন।

সিলেটে বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে সোমবার ২০ নভেম্বর চোরাচালান প্রতিরোধ সংক্রান্ত আঞ্চলিক টাস্কফোর্সের সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন বিভাগীয় কমিশনার এবং চোরাচালান প্রতিরোধ সংক্রান্ত আঞ্চলিক টাস্কফোর্স কমিটির আহ্বায়ক আবু আহমদ ছিদ্দীকী, এনডিসি। সভায় পূর্ববর্তী সভার কার্যবিবরণী দৃঢ়করণ; চোরাচালান প্রতিরোধ আঞ্চলিক টাস্কফোর্সের সভার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা; সেপ্টেম্বর-অক্টোবর মাসে বিভিন্ন সংস্থার চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত অভিযান ও জব্দকৃত মালামালের বিবরণী পর্যালোচনা এবং এ সংক্রান্ত বিবিধ বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

এতে উপজেলা ও ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সম্পর্কে বলা হয়, সীমান্তে চোরাচালান প্রতিরোধে ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ সুপার, বিজিবি ও কাস্টমসের সমন্বয়ে নিয়মিত সভা করা হয়। এ কমিটির বাস্তবায়ন অগ্রগতি শতভাগ উল্লেখ করে বলা হয়, সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মাসে সিলেট বিভাগের সীমান্তবর্তী ১৯টি উপজেলার মধ্যে প্রত্যেকটি উপজেলায় এবং সিলেট বিভাগের সীমান্তবর্তী ৬৪টি ইউনিয়নের মধ্যে সবকয়টিতে সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মাসে জেলা টাস্কফোর্সের যথাক্রমে পাঁচটি অভিযান পরিচালনা করে ৪৫ লক্ষ টাকা মূল্যমানের দ্রব্যাদি ও সাতটি অভিযান পরিচালনা করে প্রায় ১৭ হাজার টাকা মূল্যমানের দ্রব্যাদি এবং দুই ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। এ দুই মাসে কুলাউড়া ও শ্রীমঙ্গল রেলওয়ে স্টেশনে ও চলন্ত ট্রেনে চোরাচালান বিরোধী অভিযান এবং মোবাইল কোর্ট সংক্রান্ত ১শত ৬২টি অভিযান পরিচালনা করেন মৌলভীবাজার জেলা ম্যাজিস্ট্রেট। তবে কোন মালামাল পাওয়া যায়নি। বন বিভাগ ২১টি অভিযান পরিচালনা করে কোন বনজদ্রব্য পায়নি।

চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত (সকল সংস্থার) অভিযান ও জব্দকৃত মালামালের বিবরণী পর্যালোচনাতে বলা হয় সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মাসে যথাক্রমে ৯হাজার ৬শত ৫৬টি অভিযান পরিচালনা করে ২হাজার ৫৪কোটি টাকা মূল্যমানের দ্রব্যাদি, ৩শত ৩জন ব্যক্তিকে আটক ও ৯হাজার ৫শত ৬৯টি অভিযান পরিচালনা করে প্রায় ১হাজার ৫শত ৭৭ কোটি টাকা মূল্যমানের দ্রব্যাদি এবং ১শত ৫৮ ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে।

মাদক বিরোধী যৌথ অভিযান এবং মোবাইল কোর্ট বিবরণী পর্যালোচনাতে বলা হয় সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মাসে যথাক্রমে ৪হাজার ৫শত ৪৬টি অভিযান পরিচালনা করে ২কোটি ৪৪ লক্ষ ৯২হাজার ৭শত ৮৪ টাকা মূল্যমানের দ্রব্যাদি, ২শত ২৮ জন ব্যক্তিকে আটক, ২শত ১৮টি মামলা দায়ের ও ৪হাজার ৫শত ২টি অভিযান পরিচালনা করে ২কোটি ৯লক্ষ ৪২হাজার ৮শত ২৫টাকা মূল্যমানের দ্রব্যাদি, ১শত ৬৯ জন ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে এবং ২শত ২৪ টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার দেবজিৎ সিংহের সঞ্চালনায় আঞ্চলিক টাস্কফোর্স সভায় উপস্থিত ছিলেন সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি শাহ মিজান শাফিউর রহমান, বিপিএম (বার), পিপিএম, পুলিশ কমিশনার মো: ইলিয়াছ শরীফ, বিপিএম-(বার), পিপিএম, অতিরিক্ত ডিআইজি সিলেট হাইওয়ে রেঞ্জ, জেলা প্রশাসক সিলেট, হবিগঞ্জ, মৌলভীবাজার, সুনামগঞ্জ, পুলিশ সুপার সিলেট, হবিগঞ্জ, মৌলভীবাজার, সুনামগঞ্জ। সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন সিলেট বিভাগীয় ও এর আওতাধীন চার জেলা প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তারা।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ধরনের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2016 Paprhi it & Media Corporation
Developed By Paprhihost.com
ThemesBazar-Jowfhowo